গান্ধী পরিবারের ওপর আবার চড়াও মোদি সরকার

16

ভারতের গান্ধী পরিবারের সঙ্গে যুক্ত তিনটি ট্রাস্টের বিরুদ্ধে এবার তদন্ত শুরু নির্দেশ দেওয়া হলো। তদন্ত হবে নানাবিধ আর্থিক অনিয়মের, যার মধ্যে রয়েছে বিদেশি অনুদান গ্রহণ করে সরকারি সহায়তা পাইয়ে দেওয়ার মতো অভিযোগ। আজ বুধবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে ইন্দিরা গান্ধী মেমোরিয়াল ট্রাস্ট, রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন এবং রাজীব গান্ধী চ্যারিটেবল ট্রাস্টের বিরুদ্ধে এইসব অভিযোগের তদন্তের জন্য একটা অভ্যন্তরীণ মন্ত্রিগোষ্ঠী গঠিত হয়েছে। তদন্তকারী দলের নেতৃত্ব দেবেন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি) মহাপরিচালক।

কিছুদিন ধরেই কেন্দ্রীয় সরকারের কোপে নতুন করে পড়েছে গান্ধী পরিবার। রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশনের বিরুদ্ধে সম্প্রতি অভিযোগ ওঠে, চীনের কমিউনিস্ট পার্টি থেকে তারা অনুদান পেয়েছে। তার বিনিময়ে কংগ্রেস এ দেশে চীনা স্বার্থে কাজ করেছে। বুধবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এক টুইট বার্তায় বলা হয়, গান্ধী পরিবার পরিচালিত এই ট্রাস্টগুলো আয়কর আইন, অর্থ পাচার রোধ আইন বা বিদেশি অনুদান আইন ভেঙেছে কি না তা তদন্ত করে দেখা হবে।

নরেন্দ্র মোদি ও সোনিয়া গান্ধী ভারতের গান্ধী পরিবারের সঙ্গে যুক্ত তিনটি ট্রাস্টের বিরুদ্ধে এবার তদন্ত শুরু নির্দেশ দেওয়া হলো। তদন্ত হবে নানাবিধ আর্থিক অনিয়মের, যার মধ্যে রয়েছে বিদেশি অনুদান গ্রহণ করে সরকারি সহায়তা পাইয়ে দেওয়ার মতো অভিযোগ। আজ বুধবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে ইন্দিরা গান্ধী মেমোরিয়াল ট্রাস্ট, রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন এবং রাজীব গান্ধী চ্যারিটেবল ট্রাস্টের বিরুদ্ধে এইসব অভিযোগের তদন্তের জন্য একটা অভ্যন্তরীণ মন্ত্রিগোষ্ঠী গঠিত হয়েছে। তদন্তকারী দলের নেতৃত্ব দেবেন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি) মহাপরিচালক।

কিছুদিন ধরেই কেন্দ্রীয় সরকারের কোপে নতুন করে পড়েছে গান্ধী পরিবার। রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশনের বিরুদ্ধে সম্প্রতি অভিযোগ ওঠে, চীনের কমিউনিস্ট পার্টি থেকে তারা অনুদান পেয়েছে। তার বিনিময়ে কংগ্রেস এ দেশে চীনা স্বার্থে কাজ করেছে। বুধবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এক টুইট বার্তায় বলা হয়, গান্ধী পরিবার পরিচালিত এই ট্রাস্টগুলো আয়কর আইন, অর্থ পাচার রোধ আইন বা বিদেশি অনুদান আইন ভেঙেছে কি না তা তদন্ত করে দেখা হবে।

রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশনের বিরুদ্ধে সম্প্রতি অনিয়মের অভিযোগ আনেন বিজেপির সভাপতি জে পি নাড্ডা স্বয়ং। তাঁর অভিযোগ, কংগ্রেস আমলে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ওই সংস্থাকে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হয়েছে। এই আর্থিক ‌’নয়ছয়ের’ তির সরাসরি গান্ধী পরিবারের সদস্যদের দিকে তাক করে বিজেপি সভাপতি বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের চেয়ারপার্সন ছিলেন সোনিয়া গান্ধী। ফাউন্ডেশনের মাথাতেও তিনি। এটা শুধু নিন্দনীয়ই নয়, নীতিহীনও। গোটা বিষয়টিতে স্বচ্ছতার কোনো নামগন্ধও ছিল না।

কমেন্ট করুন

ফেসবুক পেইজে লাইক দিন